• Mon. Nov 28th, 2022

‘মানবজমিন’ ছবিতে ‘গীতিকার সৃজিত’-কে পেতে চেয়েছিলেন শ্রীজাত

লেখক শ্রীজাতর প্রথম ছবি ‘মানবজমিন’-এ অতিথি শিল্পী বিশিষ্ট পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। রাখিবন্ধনের দিন ছবির নায়ক-নায়িকা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, প্রিয়াঙ্কা সরকার, সুরকার জয় সরকারকে নিয়ে নেটমাধ্যমে আড্ডায় এসেছিলেন শ্রীজাত আর সঞ্চালনায় ছিলেন অগ্নি। সেই আড্ডায় যোগ দিলেন মু্ম্বইয়ে ‘সাবাস মিঠু’-র শ্যুটের ফাঁকে ব্যস্ত জাতীয় পুরস্কারজয়ী পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়।

সেই আড্ডায় শ্রীজাতর ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন যে, ‘এই ছবিতে অভিনেতা নন, গীতিকার সৃজিতকে চেয়েছিলাম। সৃজিত সপাটে জানিয়েছেন, বলিউডে বড় বড় কাজ করছি! গান লেখার সময় নেই।’ আর তারপরেই কবি রসিকতা করে বলেছেন, তখন বাধ্য হয়েই রামপ্রসাদ সেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শরণ নেন তিনি। ওঁদের হাতে বলিউডের কোনও কাজ নেই বলে! পরিচালকের আরও আক্ষেপ, অথচ অভিনয়ের কথা বলতেই এক কথায় রাজি সৃজিত! তখন কিন্তু আর কোনো বলিউড নিয়ে তাঁর বাহানা নেই।

এদিকে আবার সৃজিত-শ্রীজাতর যুগলবন্দি মানেই একের অপরের অন্দরের গপ্পো ফাঁস করেন। আড্ডার শুরুতেই সঞ্চালকের জানান যে, শ্রীজাত নাকি তাঁকে আলাদা করে জানিয়েছেন, এই ছবি বানিয়ে তিনি আরেকটি মুঠোফোন কিনবেন। আর এই সুযোগে সৃজিত বলে ফেললেন, শ্রীজাত তাঁর দেখা এমন এক কবি, যিনি মনখারাপ হলে বলেন, ‘যাই একটু প্যারিস ঘুরে আসি!’ সাধারণ মানুষ সপ্তাহান্তে মন্দারমণি যাওয়ার কথা ভাবেন। সেখানে এই কবি নাকি ইচ্ছে হলেই সপ্তাহান্ত কাটান প্যারিসে। তাঁর আরেকটি মুঠোফোন কিনতে ছবি বানাতে হবে, এ কথা অবিশ্বাস্য পরিচালকের কাছে। পরিচালকের আরও দাবি, শ্রীজাতর ছবি তৈরির নেপথ্য আছে অন্য কারণ। কবির কথার সূত্র ধরে তিনি বলেন, ছবির পরিচালনায় নিজেকে প্রমাণিত করার পরে গীতিকার হিসেবেও তিনি প্রমাণিত। ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবির গান ‘সমারোহে এসো হে পরমতর সুন্দর এসো হে’ বা ‘ফেলুদা ফেরত’ ওয়েব সিরিজ ছাড়াও একাধিক ছবিতে গান লিখেছেন তিনি। সে সব দেখেই নাকি শ্রীজাত তখনই ঠিক করেন, এ বার উনিও ছবি পরিচালনা করবেন।