• Fri. Aug 19th, 2022

১০ কোটি টাকার আইনি নোটিস রণদীপ হুডাকে!

ফের একবার বিতর্কে জড়ালেন অভিনেতা রণদীপ হুডা। এবার অভিনেতাকে গীতিকার ও চিত্রনাট্য লেখক প্রিয়াঙ্কা শর্মা ১০ কোটি মূল্যের আইনি নোটিস পাঠালেন। কিন্তু কী কারণ? অভিযোগটি হল, প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁর থেকে চিত্রনাট্য নিয়ে কাজ করেননি রণদীপ।

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রণদীপ হুডার সঙ্গে যোগাযোগ হয় প্রিয়াঙ্কা শর্মার। রণদীপ তাঁকে স্ক্রিপ্ট ও গান পাঠাতে বললে সেই মতো ১২০০ টি গান ও ৪০টি গল্প তিনি পাঠান। প্রিয়াঙ্কার আরও অভিযোগ আনেন যে, রণদীপের ম্যানেজার পাঞ্চালী চৌধুরী, মেকআপ আর্টিস্ট রেণুকা পিল্লাইকেও তিনি ইমেল ও হোয়াটসঅ্যাপে তাঁর লেখা চিত্রনাট্য পাঠালেও বছর ঘুরতে চললেও এখনও পর্যন্ত তাঁরা সেই গল্প নিয়ে কোনও কাজ করেননি। নোটিসে লেখা রয়েছে, যে মুহূর্তে প্রিয়াঙ্কা তাঁর চিত্রনাট্য ও গান ফেরত পেতে চান তাঁকে নাকি প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় এবং অকারণে এই হয়রানির জন্য রণদীপের থেকে দশ কোটি দাবি করেছেন ওই ব্যক্তি। যদিও অভিনেতার তরফে এখনও পর্যন্ত এসব নিয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

কয়েক মাস আগেই টুইটারে হঠাৎই ট্রেন্ড করতে থাকে রণদীপকে গ্রেফতারের হ্যাশট্যাগ। রণদীপের নয় বছরের পুরনো একটি ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় আর যেখানে রণদীপ একটি জোক শেয়ার করেন, যেখানে বহুজন সমাজবাদী পার্টির প্রধান মায়াবতীকে অপমান করা হয় এই বলে মনে করেন অনেকে। সে কারণেই ‘অ্যারেস্ট রণদীপ হুডা’ এই হ্যাশট্যাগটি ট্রেন্ডিং হয়। ৪৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিয়োটি ২০১২-এ একটি মিডিয়া হাউজ আয়োজিত অনুষ্ঠানে তোলা হয়েছিল। সেখানে রণদীপ একজন মহিলার বিরুদ্ধে জাত এবং যৌনতা নিয়ে কিছু কৌতুক করেছিলেন। কৌতুক করার পর সামনে বসে থাকা দর্শকের সঙ্গে রণদীপকেও হাসতে দেখা গিয়েছিল।

সেই পুরনো ভিডিয়ো শেয়ার করে এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘একজন দলিত মহিলার বিরুদ্ধে যেভাবে বলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা রণদীপ জাত এবং যৌনতা নিয়ে কৌতুক করেছেন, তাতে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে সমাজ কতটা বর্ণবাদী এবং যৌনতাবাদী।’ তিনি সামনে বসে থাকা জনতাকেও সমালোচনা করেন।