• Mon. Nov 28th, 2022

দেবলীনা-গৌরবের বন্ধুত্ব হওয়ার আগেই প্রেমে পড়েছিল!

দেবলীনা কুমার এবং গৌরব চট্টোপাধ্যায়, টলিপাড়ার এই তারকা জুটিকে অতি জনপ্রিয়। সেই জনপ্রিয় জুটির গল্পই বন্ধুত্ব দিবসে ভাগ করে নিলেন দেবলীনা।

দেবলীনা জানান যে, ২০১৭ সালে গৌরবের দিদির বাড়ির লক্ষ্মীপুজোয় অভিনেতার সঙ্গে আলাপ দেবলীনার। সেই আলাপ থেকেই তাঁদের একে অপরের প্রতি ভাল লাগা। ভাল লাগা থেকে শুরু প্রেম। এর মাঝে সত্যিই আসেনি বন্ধু হয়ে ওঠার সুযোগ। দেবলীনার কথায়, ‘শুরুতেই আমরা প্রেমে পড়েছি। বন্ধুদের মতো কথাবার্তা বলা বা ঘুরতে যাওয়া, কোনওটাই সে ভাবে ঘটেনি।‘ তাঁদের সম্পর্ক যত এগিয়েছে, গড়ে উঠেছে তাঁদের বোঝাপড়া। এক সঙ্গে যাপন করতে করতেই একে অপরের পছন্দ, অপছন্দগুলো জেনে ফেলেছিলেন তাঁরা।

গত বছর ডিসেম্বরে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন গৌরব-দেবলীনা। একসঙ্গে নিজেদের সংসার গুছিয়েছেন দু’জনে। বন্ধুত্ব ছাড়া কি সম্ভব এটা? প্রশ্ন ছুড়ে দিতেই খানিক হেসে দেবলীনা উত্তর দিয়েছিলেন, তিনি মনে করেন সব সম্পর্কেই একটা বন্ধুত্ব থাকে। তাঁর মতে অভিভাবকও সন্তানের বন্ধুর মতো হন। তাই তিনি বলেন, তাঁর আর গৌরবের মধ্যেও সে রকম আলাদা করে কোনও বন্ধুত্ব তৈরি হয়নি।‘

তাই তাঁদের ভালবাসা দিবসে উপহারের ঘনঘটা থাকলেও বন্ধুত্ব দিবসে তাঁরা আর পাঁচটা সাধারণ দিনের মতোই কাটান। কারণ গৌরব এবং দেবলীনা আগাগোড়াই তাঁদের সম্পর্ককে বন্ধুত্বের থেকে প্রেমকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছেন। বিগত তিন বছর ধরে তাই তাঁরা এই দিনটায় রেস্তরাঁয় খেতে যান। দেবলীনার কথায়, ‘আমি আর গৌরব কখনওই বন্ধু ছিলাম না। শুরুতেই আমরা প্রেমে পড়ে গিয়েছি। তাই অন্তত আমার কাছে বন্ধুত্ব দিবসের কোনও গুরুত্ব নেই’।