• Sat. Oct 1st, 2022

শশাঙ্ককে ছাড়বেন না শ্রীলেখা! কিন্তু কেন?

অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বেশ কিছুদিন আগে বলেছিলেন একটি কুকুর ছানাকে দত্তক নিলে তিনি সেই ব্যক্তির সঙ্গে ডেটে যাবেন। শশাঙ্ক নামের এক যুবক পথের এক ফুটফুটে কুকুর ছানাকে দত্তক নিয়েছিলেন আর শর্ত মতো, শ্রীলেখাও তাঁর সঙ্গে কফি ডেটে গিয়েছিলেন। সেই ডেটের নাম দিয়েছিলেন, ‘পসাম ডেট’। কিন্তু সোমবার রাতে একটি ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে জানা যায়, কুকুর ছানাটি আর নেই, সে মারা গিয়েছে। যে মহিলা তাঁকে দত্তক দিয়েছিলেন, তিনি ভীষণরকম ভাবে ভেঙে পড়েছেন। লাইভে এসে জানিয়েছেন যে, শশাঙ্ককে তিনি ছাড়বে না এবং এর শেষ দেখে ছাড়বেন তিনি।

সেই মহিলার নাম দময়ন্তী সেন, তিনি পথ কুকুরদের বন্ধু। পরম আত্মীয়ের মতো আগলে রাখেন তাদের। তাঁর থেকেই শশাঙ্ক নামের এই ব্যক্তি একটি ছোট্ট কুকুর ছানাকে দত্তক নিয়েছিলেন। লাইভে এসে সম্পূর্ণ ঘটনাটি খুলে বর্ণনা করেছেন দময়ন্তী। তিনি মনে করেন শ্রীলেখার সঙ্গে শুধু ডেটে যাবেন বলেই এই কুকুরটিকে অ্যাডপ্ট করেছিলেন শশাঙ্ক।

অভিনেত্রী শ্রীলেখাকে উদ্দেশ্য করে দময়ন্তী লাইভে বলেছেন, অভিনেত্রীর কথার ভিত্তিতেই শশাঙ্ককে কুকুরটি দত্তক দিয়েছিলেন তিনি। শশাঙ্ককে নিয়ে নাকি তাঁর বরাবরই সন্দেহ হয়েছিল। তাই বারবার ছানাটির খবরই নিতেন দময়ন্তী। পুরনো ভিডিও পাঠিয়ে শশাঙ্ক আশ্বস্ত করতেন দময়ন্তীকে যে ছানাটি ভাল আছে। সন্দেহের বশেই খোঁজ নিতে গিয়ে দময়ন্তী জানতে পারেন যে সেই কুকুর ছানাটি মারা গিয়েছে। তারপর নিজেকে আর তিনি সামালাতে পারেননি।

এখন অপরাধবোধে ভুগতে শুরু করেছেন শ্রীলেখা। তাঁর লাইভটি শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, ‘সরি দময়ন্তী, এরকমটা হবে ঘুণাক্ষরেও ভাবিনি।‘ তিনি এখন জুরিখে। কিছুদিন আগে সুইৎজারল্যান্ডের এই শহরে গিয়েছেন অভিনেত্রী। তার মধ্যেই আসে এই দুঃসংবাদ। কিছুক্ষণ আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেছেন শ্রীলেখা সেখানে একেবারে ভেঙে পড়েছেন তিনি।