• Tue. Aug 16th, 2022

অলিভিয়ার কাছে টক্সিক রিলেশন থেকে বেরিয়ে যাওয়া মানেই স্বাধীনতা!

প্রত্যেকের জীবনেই প্রেম আসে আবার কখনও সেটা ভেঙেও যায়। কিন্তু সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে গেলে কি নিজের কাছে নিজে স্বাধীন হওয়া যায়? ৭৫তম স্বাধীনতা দিবসে এই প্রশ্নের উত্তর দিলেন করা অভিনেত্রী অলিভিয়া সরকার। তিনি জানান যে, তিনি দীর্ঘ ১০ বছরের একটা সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে এসেছেন। তবে কি সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর নিজেকে স্বাধীন মনে হয়েছিল?

অলিভিয়া জানান যে, স্বাধীন অনুভূত হওয়াটা নির্ভর করে কতটা টক্সিক রিলেশন ছিল তার উপর। তাঁর ১০ বছরের বন্ধুত্ব ছিল আর প্রেম ছিল তিন বছরের। এই পুরো সময়টা, যখন প্রেম করেন, বিশ্বাস করেন কোনও একটা মানুষকে, যখন মনে হয় ওর সঙ্গে থাকবেন, ঠিক তখন ফ্রিডম ব্যাপারটা অনেক আগেই মাথা থেকে বেরিয়ে যায়।

যখন তিনি প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন তখন কি তাঁর উপর জোর করে কিছু চাপিয়ে দেওয়া হত? এর উত্তরে তিনি জানান, অনেকে নাকি বলেন কন্ট্রোলড ফিল করছি। অনেকের মনে হয় বেঁধে রাখা হচ্ছে তাঁকে। কোথায় যাচ্ছি, কেন যাচ্ছি, কেন বলব? তাঁর মনে হয়, এই প্রশ্নগুলো জানতে চাওয়ার জন্য করেছেন, এমন নয়। এটা খুবই নর্মাল। এটা প্রায়োরিটি। তাঁর মতে এটা সিম্পল ভাবে দেখা হোক। দীর্ঘদিন সম্পর্কে থাকা মানে ফ্রিডম কেড়ে নিল, এমন কিন্তু নয়।

যে সম্পর্কটি তাঁর কাছে এক সময় প্রায়োরিটি ছিল, আজ অভিনেত্রী অলিভিয়ার কাছে সেই ছবিটা একেবারেই আলাদা। তাঁর মতে, বয়সের সঙ্গে সঙ্গে প্রায়োরিটি চেঞ্জ হয় এবং পছন্দও পাল্টায়। এটা খুব ন্যাচারাল। ফলে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়া ফ্রিডমের ব্যাপার নয়। যদি সম্পর্কে মনে হয় সাফোকেটেড, তা হলে সেটা আলাদা কথা। তিনি বললেন, যদি অভিমান করলে রেউ রাগ না ভাঙায়, সামনের মানুষটাও রাগ করে বসে থাকে। বা যদি দেখা যায়, অভিমান ভাঙানোর কেউ নেই, যাকে ভালবাসলেন, সেই তাঁকে সব দোষ দিচ্ছে। সেটা হলে টক্সিক।