• Tue. Aug 16th, 2022

সানি লিওনির ‘মধুবন’ গানের নাম ও কথা পাল্টে দেওয়া হবে!

সদ্য মুক্তি প্রাপ্ত সানি লিওনির গানের ভিডিয়ো ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে’ নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র সরাসরি ‘হুমকি’ দিয়েছেন মডেল-অভিনেত্রী সানি লিওনিকে। সেই ভিডিয়োতে লাল-কালো-সাদা খোলামেলা পোশাকে বৃন্দাবনে রাধার বেশে দেখা যাচ্ছে সানিকে। রবিবার নরোত্তম মিশ্র জানিয়েছিলেন, সানি লিওনিকে তাঁর ভিডিয়ো নেটমাধ্যম থেকে সরিয়ে নিতে হবে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে। অন্যথায় তিনি নাকি আইনি পদক্ষেপ নেবেন। তার পরেই রবিবার রাতে একটি বিবৃতি জারি করে গানের সংস্থা ‘সারেগামা’। বিবৃতিতে ঠিক কী বলা হল?

সংস্থা জানিয়েছে যে, তারা বিতর্কিত গানের কথা এবং নাম বদলে দিতে প্রস্তুত আছেন। ১৯৬০-এর ছবি ‘কোহিনুর’-এর জনপ্রিয় গান ‘মধুবন মে রাধিকা নাচে’ তারই রিমেক ভিডিয়ো হিসেবে তৈরি হয়েছে এই সম্পূর্ণ গানটি। এর আগে এই ভিডিয়োটি নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছিলেন উত্তরপ্রদেশের মথুরার পুরোহিতেরা। তাঁদের অভিযোগ ছিল, রাধার নামে কুরুচিকর গান তৈরি হয়েছে আর তাই এই ভিডিয়ো হিন্দুদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করেছে।

অন্য দিকে মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র জানান যে, কয়েক জন বিধর্মী ক্রমাগত হিন্দুদের অনুভূতিতে আঘাত করছে। ভিডিয়োটি তাঁর কাছে অত্যন্ত নিন্দনীয়। তিনি সানি লিওনি, শারিব এবং তোশিকে সতর্ক করেছেন। তিনি বলেন, তাঁরা যদি তিন দিনের মধ্যে ক্ষমা না চান এবং গানটি সরিয়ে না দেন, তা হলে তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিজেপির মন্ত্রীর এই হুঁশিয়ারির পরেই রাতে ‘সারেগামা’ বিবৃতিতে লেখেন, ‘সাম্প্রতিক ঘটনাবলি এবং আমাদের সহ-নাগরিকদের ভাবাবেগের কথা মাথায় রেখে ‘মধুবন’ গানটির কথা এবং নাম বদলে দেব।’ এও জানিয়েছে যে আগামী তিন দিনের মধ্যে পুরনো ভিডিয়োটি বদলে নতুন ভিডিয়ো নিয়ে আসবেন।