• Fri. Oct 7th, 2022

বন্ধু আমিরকে বাঁচিয়ে, নিজের ঘাড়ে ‘দোষ’ নিয়েছিলেন সলমন!

আজ বন্ধুত্ব দিবস। তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে উপচে পড়ছে স্পেশ্যাল শুভেচ্ছা বার্তায়। আমির খান ও সলমন খান বলিউডের দুই তারকা অভিনেতার মধ্যে অশান্তি হয়েছে ঠিকই, তবে রয়েছে বন্ধুত্বও। বন্ধু অপ্রস্তুত অবস্থার মধ্যে পড়লে কার্যত নিজের ঘাড়ে দোষ নিয়ে বন্ধুকে বাঁচিয়েছেন অন্যজন। কি সেই ঘটনা?

সালটা ১৯৯২, সে সময় আমির ও সলমন, দুই ‘খান’ তারকাই ইন্ডাস্ট্রিতে প্রায় নতুন। আমির তখন বিবাহিত, স্ত্রী রীনা দত্ত। সে সময় এক সহ-অভিনেত্রীকে নিয়ে আমিরের সঙ্গে কোনো সম্পর্কের গুঞ্জন বলিউডে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে। সলমন গিয়েছিলেন এক সাক্ষাৎকারে। সেখানে সাংবাদিক সলমনকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে সলমন সঙ্গে সঙ্গে বলে ওঠেন, ‘আমিরের ব্যাপারে গসিপটা নয়, গসিপটা আসলে আমার ব্যাপারে। আমিরের ভীষণ ক্লিন ইমেজ, কী জানি কীভাবে ও এই স্বচ্ছ মূর্তি বজায় রাখে!’ সলমন আরও বলেছিলেন, ‘আমির তো বিবাহিত, সব সময় ওকে বলতে শোনা যায় স্ত্রীকে কতটা ভালবাসে ও। এই সব বলেই পার পেয়ে যায় ও।‘ সাংবাদিক আবারও একই প্রশ্ন সলমনকে করলে তিনি তাঁর তীব্র বিরোধিতা করে বলেন, ‘না, না, না একেবারেই নয়।‘ অর্থাৎ এমনটাই ছিল তাঁদের বন্ধুত্ব।

তবে এই গভীর বন্ধুত্বেও চিড় ধরেছিল ‘আন্দাজ আপনা আপনা’ ছবির শুটিংয়ের সময়। আমির-সলমন ছাড়াও ওই ছবিতে ছিলেন করিশ্মা ও রবিনা। আমির-সলমনের কথা বন্ধ তখন, অন্যদিকে রবিনা-করিশ্মাও কথা বলতেন না। এ কথা নিজেই পরবর্তীকালে ফাঁস করেছিলেন রবিনা টন্ডন নিজে। যদিও সে সবই এখন অতীত। দুই খানের মধ্যে বর্তমান সম্পর্ক বেশ ভালই।